বিশেষ নিবন্ধ

লেপচা জগৎ - ঘুম পাহাড়ের কোলে কাটিয়ে আসুন কিছুদিন

ছবি
মুক্তির স্বাদ চাইছে মন। দৈনন্দিন জীবনের হাজারো ক্লান্তি, ব্যস্ততা, একঘেয়েমিতে  হাঁফিয়ে উঠে বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেতে হাতছানি দিচ্ছে পাহাড়ে ঘেরা কোন এক নিরিবিলি স্থান যেখানে নিজের মত করে কিছুটা সময় কাটিয়ে আসা যাবে। ব্যস্ততার মধ্যে ছুটি মেলাও এক বিশাল ব্যপার কিন্তু পাহাড়ের সৌন্দর্য দেখার জন্য মন যে ছটফট করছে। তাই আর দেরি না করে ব্যাগ গুছিয়ে তিন-চার দিনের জন্যে বেড়িয়ে আসতে পারেন দার্জিলিং থেকে একটু দূরেই ঘুম পাহাড়ের কোলে অবস্থিত একটি অন্যতম অফবিট ডেস্টিনেশন - লেপচা জগৎ-এ। 

ছোট গল্পঃ গোলোক বাবুর চেয়ার! - জয়ন্ত বিশ্বাস


আলতা লালে লিখেছিলেন 'এখানে নোংরা ফেলবেন না'
তার পর নীল সাদায় লিখলেন 'এখানে নোংরা ফেলবি না'
নাহ! তাও গোলোক বাবু কিছুতেই বাড়ির  সামনে ময়লা ফেলা বন্ধ করতে পারছেন না
আচ্ছা এবার কি গেরুয়া কালিতে লিখে নীচে জুড়ে দেব 'আদেশানুসারে প্রধানমন্ত্রী' ?
তাতেও কাজ না হলে 'আদেশানুসারে রাষ্ট্রপতি'!!
..

এই সব ভাবতে ভাবতে ঝুল বারান্দায় চায়ে চুমুক আর বাড়ির  সামনের নোংরা মাপছিলেন।
গোলোক বাবু
এই এক কাজ, সকালে উঠে রোদ পোহাতে এলেই নোংরা পর্যবেক্ষণ!
কে যে ফেলে যায়, কিছুতেই ধরতে পারছেন না,
ধরতে পারলে না...
উফফ!!
জিভে কামড়  খেলেন   confirmed bachelor গোলোক বাবু
আরে ওটা কি?
বেশ কারুকাজ করা পুরনো আমলের চেয়ার না?
একটা পা ভাঙ্গা
কিন্তু তার দেখতে ভালো লাগছে
কে ফেলল?
.
.
গোলোক বাবু চুপি চুপি চেয়ারটা  যখন তুলে আনছেন, খুব কাছ থেকে পোস্টারটা  নজরে পড়ল আবার। নিজে হাতের লেখা, 'এখানে নোংরা ফেলবি না'
কিঞ্চিৎ কি হাসলেন?
.
.
একটা পায়া ঠিক করে নিলে দিব্বি বসা যায়

আচ্ছা এটা কি কোন ভৌতিক চেয়ার?
রাতে কি এটায় কোন ভূত এসে বসবে ?
বা এমনি এমনি দুলবে?
বা
হুট হাট বনবন করে ঘুরবে?
কিম্বা
এতে বসলেই কি গোলোক বাবু  সুপার ম্যান হবেন?
গোলোক বাবু একা থাকেন বটে, কিন্তু ভয় পেলেন না
কিঞ্চিৎ হাসলেন...
ধুসস।
বরং একটা সেলফি নি চেয়ারটার সাথে... গোবরডাঙার মুনমুন কে ট্যাগ করবো

শেষ রাতে ঘুম ঠিক আসছিল না, কেমন যেন ঠাণ্ডা একটু বেশি... লেপ কি গা থেকে সরে গেল !
ঘুমের ঘোরে ঠিক ধরতে পারেন নি গোলোক বাবু
বছর দশেক আগে, জানালা টপকে গোলোক বাবুর বিছানায় রোদ আসতো বটে, শীতকালিন।
পাশে  হুলো টাইপ একটা ফ্ল্যাট গজানো ইস্তক সেটা আর নেই
কিন্তু আজ সকালে একটা নরম রোদ গোলোক বাবুর মুখে পড়ছিল বলেই হয়তো ঘু্ম দেরি করে ভাঙল
আহা রোদ
দেরি হল?
পায়ের দিকে  ঘড়ি টা দেখতে যাবেন
অবাক
কোথায় কী?
বা পাশ ফিরতেই চোখে সূর্য গুতো মারল
উফফ... বড় জ্বালাতন
ডান পাশ দেখবেন বলে ঘু্রতেই নজরে পড়ল নীল আকাশ, উপরে
আর  ডান পাশে?
এক স্তূপ নোংরা
গোলোক বাবু  নোংরায় পড়ে আছেন
তার বাড়ির  সামনে
আর বাড়ির  বারনাদায় ওটা কে?
 'গোলোক বাবু' চায়ে চুমুক দিছেন, আর তার দিকেই তাকিয়ে হাসছেন
তফাত একটাই, বা দিকের কষের দাঁতটা নেই,সে হাসিতে,
ঠিক যেমন চেয়ারটার এক পা ভাঙ্গা ছিল।।
গোলোক বাবু নোংরায় পড়ে আছেন , চেয়ার হয়ে,
এখানেও তফাত একটাই, সে চেয়ারে চারটে পায়াই ঠিক।
.
.
গল্পটা এখানেই শেষ হলে পারত, কিন্তু আরও দু লাইন লিখতে খুব  ই চ ছা করছে।
লিখি?
.
খুব ভোরে হাটা দত্ত বাবুর খুব সখ, কাজও, ফাকা রাস্তায় টুপ করে প্লাসটিকে ভরা বাড়ির জঞ্জাল  গোলোক বাবুর সামনে জমিতে ফেলেন।
আজ দেখেন একটা বেশ কারুকাজ করা পুরনো আমলের চেয়ার পড়ে আছে, যার চারটে পায়া ঠিকঠাক.
দত্ত বাবু চেয়ারটা নেবার জন্নি এগুলেন, বউ খুব খুশি হবে, খুউউব।

আমাগো গোলোক বাবুর আর confirmed bachelor থাকা হল নি,
পাঠক উলু দিন।।

Author bio

Name: Jayanta Biswas

Cartoonist & Short Story Writer

View his profile on Facebook

মন্তব্যসমূহ

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় – কেন এত জনপ্রিয় ছিলেন

কেন বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প আজ বিলুপ্তির পথে? - সিমন রায়

লেপচা জগৎ - ঘুম পাহাড়ের কোলে কাটিয়ে আসুন কিছুদিন